1. [email protected] : Annayer Chitro : Annayer Chitro
  2. [email protected] : struggle : Jaffrey Alam
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম ->>
বরগুনায় ১০০ পিচ ইয়াবা সহ ১১ মামলার আসামী রিয়াজ গ্রেফতার সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় অভিযোগ দেখার যেনো কেউ নেই, রাস্তা নয় যেন মরণ ফাঁদ উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি বাঘাসুরা ইউনিয়নে মুন্সীগঞ্জে মিরকাদিম লঞ্চঘাটে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া: আটক ১ ওসির অভিযানের আগেই আগাম খবর পায় মাদক কারবারিরা উপচারের সম্পাদকসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে লিগ্যাল নোটিশ মুন্সীগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত ডিসি’র সাথে সাংবাদিকের সৌজন্য সাক্ষাৎ আওয়ামীলীগকে আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে লাভ নাই : এনামুল হক শামীম সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মিরপুর সম্মিলিত সাংবাদিক জোটের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচী

মুন্সীগঞ্জে মিরকাদিম লঞ্চঘাটে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া: আটক ১

  • আপডেট সময় : সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩০ বার পঠিত

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি:-

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মিরকাদিম পৌরসভার কাঠপট্টি লঞ্চঘাটের দখল নিয়ে শ্রমিকদের দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দু’গ্রুপের কয়েকজন আহত হয়েছে।

তাদের মধ্যে দুইজনকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ কাউন্সিলর লিটনের সন্তানকে আটক করেছে। পুনরায় আবারো শ্রমিকরা এখানে রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষের আশংকা করছে। বর্তমানে ঘাট এলাকাটি থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

জানা যায়, মিরকাদিম পৌরসভার কাউন্সিলর ও স্থানীয় বিএনপি নেতা লিটন প্রভাব বিস্তার করে এ লঞ্চঘাটের শ্রমিকদের নিয়ন্ত্রণ করছিলো বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ পরিপ্রেক্ষিতে মিরকাদিম পৌরসভার শ্রমিকলীগের নেতারা গতকাল রবিবার সন্ধ্যার পর লিটনের সমর্থকদের লঞ্চঘাট ছেড়ে চলে যেতে বলে।

আর নিয়ে কথাকাটাকাটির এ পর্যায়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া বেধে যায়। ঝগড়ার পর লিটন সমর্থকরা ঘাট ছেড়ে চলে যায়। এখন ঘাটটি শ্রমিকলীগ নেতা জিল্লুর এর দখলে রয়েছে। ঘটনার সময়ে কাউন্সিলর লিটন মিরকাদিম ছিলেন না। সে কোন কারণে ককসবাজার রয়েছে বলে জানা গেছে।

এ ঘাট দিয়ে প্রতিদিন ভোরে কয়েক কোটি টাকার মাছের মালামাল নামানো হয়ে থাকে। এছাড়াও চাল, ডাল ও ভুষা মাল এ ঘাট দিয়ে উঠা নামানো হয়। এ কারণে এখানে শ্রমিকদের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। মালামাল উঠা

নামানোতে এখানে নগদ কাঁচা টাকার রয়েছে এখানে। তাই এ ঘাট শ্রমিকদের পক্ষে সুবিধাবাদিরা এটি নিজ দখলে নিতে বর্তমানে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

শ্রমিক নেতা জিল্লুর বলেন, কাউন্সিলর লিটন স্থানীয় একজন বিএনপি নেতা। বিশেষ ব্যক্তিদের আর্শিবাদে সে এ ঘাটটি দখল করে রেখেছে। আর আমরা আ’লীগ হয়ে ঘাটে আসতে পারছি না।

মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র হাজি আব্দুল ছালাম বলেন, এ ঘটনাটি শুনেছি।
এ ঘটনার পর রাতেই অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন দেব ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ অন্যায়ের চিত্র
Theme Customized By Theme Park BD